Amazon

মুখ্যমন্ত্রীকে কোয়ারেন্টাইন এ পাঠানো হোক : দিলীপ ঘোষ


কলকাতা: রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি দিনে দিনে ভয়ানক হয়ে উঠছে। এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানতর। বিরোধীরা অভিযোগ করেছেন করোনা মহামারী নিয়ে তথ্যের লোপাট করেছে নবান্ন। এই নিয়ে রাজ্যের রাজ্যপালের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পত্রযুদ্ধও চলে।

এরই মধ্যে দিলীপ ঘোষের দাবি "রাজ্যে রেশন দেওয়ার ব্যবস্থা খুব খারাপ । তৃণমূল চাল চুরি করে করছে। অনেক মৃতদেহ হাসপাতালে রয়েছে। রাজ্য সরকার ভুল তথ্য দিচ্ছে এইসবের প্রতিবাদে রবিবার প্রতীকী অবস্থান করব। বিজেপির কর্মীরা নিজের বাড়িতে অবস্থান বিক্ষোভ করবেন"

দিলীপ ঘোষ আরো বলেন যে তার দলের নেতাকর্মীদের বাড়িতে কোয়ারান্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী ও তার দলের নেতা কর্মীরা তো ২৪ ঘন্টা বাইরে থাকেন তাহলে মুখ্যমন্ত্রী কেউ কোয়ারেন্টাইন করা হোক।

এই নিয়ে শাসকদলের নেতারাও কটাক্ষ করেছেন। কিন্তুু দিলীপ ঘোষ সেই কটাক্ষ উড়িয়ে দেন এবং বলেন আমাদের নেতা কর্মীরা কোথায় চাল, ডাল বিলি করতে গেলে তাদের বাধা দেওয়া হচ্ছে তাদের গাড়ি আটকে দেওয়া হচ্ছে। এইদিকে মুখ্যমন্ত্রী বিনা কারণে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

বিরোধী দলের কর্মীদেরকে শাসকদলের থেকে এবং প্রশাসনকে দিয়ে কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা বলানো হচ্ছে। আর মুখ্যমন্ত্রী যে এইভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এত লোকের সংস্পর্শে আসছেন তাকে কেনো কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য বলা হচ্ছে না। এই সমস্ত প্রশ্ন উঠে আসে বিরোধী দল থেকে।

অন্যদিকে মৃত্যুর তথ্য লোপাট নিয়েও দুই দলের মধ্যে রাজনৈতিক লড়াই চলে বেশ কিছুদিন ধরে। যা নিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে পত্র যুদ্ধও হয় মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালের মধ্যে, যা আগে বলা হয়েছে।

যাইহোক সমস্ত দেশ এখন এক কঠিন মহামারীর মত ছড়িয়ে যাচ্ছে তাই সবাই ঘরে থাকুন সুস্থ থাকুন। সমস্ত ভারত জুড়ে যে লোকজন প্রযোজ্য হয়েছে তা মেনে চলুন এবং কারো সাথে কথাবার্তা বলার সময় অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবেন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলবেন। করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার একমাত্র পথ এখন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা।

Post a Comment

1 Comments

Anonymous said…
Really nice