Amazon

ভারতে করোনা আক্রান্ত চল্লিশ হাজারের বেশি !


ভারতে করোনা আক্রান্ত দিন দিন বেড়েই চলেছে, যদিও ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর তুলনায় অনেক কম হারে বাড়ছে। কিন্তু ভারতের কিছু কিছু জেলায় সংক্রমণ খুব দ্রুত বাড়ছে, যা খুব চিন্তার বিষয়। ভারতের রাজধানী দিল্লি আর আমাদের কলকাতা কেও রাখা হয়েছে রেড জোনএ।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে প্রায় ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে কোভিড ১৯ সংক্রমণে। গত ২৪ ঘন্টায় প্রায় ২৬৪৪ জন সংক্রামিত হয়েছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্র কের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মোট করো না ক্লান্ত ৪০০০০ বেরিয়েছে। এই সমস্ত রোগীদের মধ্যে প্রায় ২৮ হাজার রোগী অ্যাক্টিভ। দেশে মোট মৃতের সংখ্যা ১৩০৫ জন। করোনা কে পরাস্ত করে সেরে উঠেছেন প্রায় ১০০০০ জন।

গত মাসে করোনা সংক্রামিত রোগীর সংখ্যা ছিল ৩০ হাজারের কম যা আজ ৪০০০০ পেরিয়েছে। অর্থাৎ তিন চার দিনের মধ্যে প্রায় ১০ হাজার লোক সংক্রামিত হয়েছেন যা খুবই চিন্তার বিষয়। কিন্তু আশ্বস্ত হওয়ার বিষয় এই যে মৃতের সংখ্যার থেকে সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা অনেক বেশি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন জানান যে প্রতি ১২ দিন অন্তর দেশে কোনো রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছে। সমস্ত দেশ জুড়ে প্রতিদিন প্রায় ৭৪ হাজারের মতো কর্ণাটক হচ্ছে, এখনো পর্যন্ত প্রায় ১০ লাখ টেস্ট করা হয়েছে। তিনি আরো জানান যে আমরা সাফল্যের পথে করছি এবং জিত আমাদের হবেই। করণা আক্রান্তদের জন্য প্রায় আড়াই লাখ শয্যা উপস্থিত আছে।

কিছু সিআরপিএফ জাওয়ান এর ও করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা সামনে এসেছে। সমস্ত পুলিশ, ডাক্তার, অধাসেনা সবাইকে সচেতন থাকার কথা বলা হয়েছে। সবাইকে একসঙ্গে করোনা মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন সবাইকে কন্যার সঙ্গে লড়াই করতে প্রস্তুত থাকতে হবে এবং সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে একমাত্র সচেতনতা এবং সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স এর মাধ্যমে আমরা করোনা কে হারাতে পারি। তিনি আরো বলেন যতদিন না পর্যন্ত কোভিদ নান্টু এর টিকা আবিষ্কার হচ্ছে ততদিন আমাদের সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স মেনে চলতে হবে।

লকডাউন শেষ হয়ে যাওয়া মানে করোনা শেষ হয়ে যাওয়া না। তাই যতদিন না পর্যন্ত করোনার সঠিক প্রতিশোধক আবিষ্কার হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত সবাইকে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স মেনে চলতে হবে এবং সতর্ক থাকতে হবে। এটিই একমাত্র পথ করোনার বিরুদ্ধে যার মাধ্যমে আমরা লড়াই করতে পারি। সবাই বাড়িতে থাকুন সুস্থ থাকুন এবং সমস্ত রকম খবরের জন্য আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন।

Post a Comment

0 Comments